Like Us Like Us Facebook Subscribe Subscribe us YouTube Whatsapp Share us Whatsapp Query Send your queries

পঞ্চায়েত প্রধান হতে মরিয়া হাতি সিং বিয়েই করে ফেললেন

পঞ্চায়েত প্রধান হতে মরিয়া হাতি সিং বিয়েই করে ফেললেন

পঞ্চায়েত প্রধান হতে মরিয়া

হাতি সিং বিয়েই করে ফেললেন

 

গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান হওয়ার ইচ্ছা৷ কিন্তু তাঁর গ্রামের আসনটি মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত বলে ঘোষিত হয়। পঞ্চায়েত প্রধান হওয়ার আর কোনও রাস্তা না থাকায় শেষ পর্যন্ত বিয়ে করতে বাধ্য হলেন ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তি। ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের বালিয়া জেলার করণ ছাপড়া গ্রামের৷

করণ ছাপড়া গ্রামের বাসিন্দা হাতি সিং বহু বছর ধরে সামাজিক উন্নয়নের কাজের সঙ্গে যুক্ত। ২০১৫ সালে পঞ্চায়েত ভোটে দাঁড়ালেও, জিততে পারেননি। সেই বছর ভোটের ফল বেরনোর পর দেখা যায়, দ্বিতীয় স্থান দখল করেছেন হাতি সিং। ফলে তাঁর পঞ্চায়েত প্রধান হওয়ার বাসনা আরও তীব্র হয়ে ওঠে৷ এ বছর করণ ছাপড়া গ্রামের আসনটি মহিলাদের জন্য সংরক্ষণ করা হয়৷ ফলে এ বছর নির্বাচনে জিতে গ্রামের প্রধান হওয়ার বাসনা তাঁর পূরণ হবে না ভেবে তিনি হতাশ হয়ে গিয়েছিলেন৷ কিন্তু সব পথ বন্ধ হলেও, একটি রাস্তা খোলা ছিল-বিয়ে৷ তাঁর বন্ধুরাও বিয়ে করে নেওয়ার পরামর্শ দেন তাঁকে৷ কথামতো বিয়ের পিঁড়িতে বসেন ৪৫ বছরের হাতি সিং। পঞ্চায়েত নির্বাচনে নিজের স্ত্রীকে দাঁড় করিয়ে, পিছন থেকে নিজে সমস্ত কাজ পরিচালনা করবেন, এই ভেবেই বিয়ে করে ফেললেন হাতি সিং ।

শুধু তাই নয়, নির্বাচনে দাঁড়াতে মরিয়া হাতি সিং বিয়ে করেছেন মলমাসে। হিন্দু রীতি অনুযায়ী, এই মাসে বিয়ে হয় না। সংবাদমাধ্যমকে হাতি সিং জানান, নির্বাচনে দাঁড়াতে মনোনয়পত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ১৩ এপ্রিল৷ তার আগে তাঁকে বিয়ে সম্পন্ন করতেই হত৷

 

বার্তা ৩৬৫-র নিউজ টিমের প্রতিবেদন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *